আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় টেনিস টুর্নামেন্টে ঢাবিকে হারিয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন

আজ ২২ মার্চ ২০১৯ খ্রি. তারিখ বিকেলে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেনিস গ্রাউন্ডে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় টেনিস প্রতিযোগিতা ২০১৯ এর ফাইনাল খেলা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ফাইনাল খেলায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দল ২-০ সেটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। পরে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন।

তিনি বিজয়ী ও রানার আপ উভয় দলের খেলোয়াড়বৃন্দ এবং ম্যানেজার, কোচদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন শিক্ষার্থীদেরকে বেশি করে খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করা দরকার। একই সাথে যারা খেলোয়াড় নয়, কিন্তু সমর্থক হিসেবে, দর্শক হিসেবে সাধারণ শিক্ষার্থীরা খেলার মাঠে সময় কাটালে খেলা যেমন প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে, তেমনি দর্শকরাও মানসিকভাবে প্রফুল্ল থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যাতে মাদক বা অপসাংস্কৃতির কর্মকা-ের সাথে সম্পৃক্ত হতে না পারে সে জন্য তিনি সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে খেলাধূলা তথা সহশিক্ষা কার্যক্রম জোরদারের আহবান জানান।

তিনি বেশি বেশি করে খেলার আয়োজনের মাধ্যমে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের ভেন্যু হিসেবে পরিণত করারও আহবান জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র বিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ও টুর্ণামেন্ট কমিটির সদস্য-সচিব মোল্লা মোহাম্মদ শফিকুর রহমান।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের উপ-পরিচালক এস এম জাকির হোসেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দলের খেলোয়াড়রা ছিলেন মোঃ রবিউল ইসলাম, আব্দুল্লাহ হাসান রাকিব, রিদওয়ানুল হক, আশফাক আহমেদ শাহুল। দলের ম্যানেজার ছিলেন প্রফেসর ড. মোঃ ইফতেখার শামস। কোচ ছিলেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের উপ-পরিচালক এস এম জাকির হোসেন এবং সহকারী কোচ ছিলেন মোঃ আবু সাঈদ।

অপরদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দলের খেলোয়াড় ছিলেন শেখ মারুফ হাসান, এটিএম জাহিদ হাসান, মাধুর্য সরকার এবং এবিএম মাইনুল হাসান। ম্যানেজার ছিলেন শারীরিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী পরিচালক মোঃ মোবাশ্বের সালাম।

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *