খুবির পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনে নবীনবরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

গতকাল ৫ মার্চ ২০১৯ খ্রি. তারিখ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবনের ইউআরপি ডিসিপ্লিনের লেকচার থিয়েটারে পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে নবীনবরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পদার্থবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন প্রধান ড. মোঃ রাশেদুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ। তিনি বলেন এ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন সেশনজট নেই, নেই কোন রাজনীতি, নেই কোন হানাহানি।

এখানে শিক্ষার্থীদের জন্য সুযোগ অবারিত। শিক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই আলোর পথের সন্ধান করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বজ্ঞান চর্চার পীঠস্থান। এখানে সবাই আসে আলোকিত হতে। কেউ যদি অন্ধকার পথে পা বাড়ায় তবে সারা জীবনের জন্য সে অন্ধগলিতেই হারিয়ে যাবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ভবিষ্যৎ জীবনের সাফল্যের সোপান গড়ে দেয়। তাই এখান থেকে যথাযথ জ্ঞানলাভ করার জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. ফারজানা নাহিদ। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ডিসিপ্লিনের শিক্ষক ড. মোঃ তরিকুল ইসলাম, গোষ্ঠ গোপাল বিশ্বাস, কারিমুল হক, রিঙ্কু মজুমদার, মোঃ আব্দুল মালেক, মোঃ সোহেল শিকদার। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখে সৌভিক কুমার ঘোষ, মোঃ লাবিব হোসেন খান, এজাজ আহমেদ, নওশীন ফেরদৌস সম্পা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শরিফুল ইসলাম ও মনোয়ারা আখতার বিথী।

বিদায়ী এবং নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। পরে বিকেলে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে সকালে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে শুরু করে কটকা হয়ে হাদী চত্বরে এসে শেষ হয়।

খুবির এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনে ফ্লোরিডায় টেকসই এবং জৈব উদ্যান ফসল উৎপাদনের অগ্রগতি শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

আজ ৫ মার্চ বিকাল ৩ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশ চন্দ্রবসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ‘ফ্লোরিডায় টেকসই এবং জৈব উদ্যান ফসল উৎপাদনের অগ্রগতি’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. সরদার শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রাধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জীব বিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. মোঃ রায়হান আলী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার(ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস এবং সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের সিনিয়র শিক্ষক প্রফেসর ড. সঞ্জয় কুমার অধিকারী। সেমিনারে এডভান্সিং সাসটেইনেবল এন্ড অর্গানিক হর্টিকালচারাল ক্রপ ইন ফ্লোরিডা শীর্ষক মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করেন ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. কার্লিনি এ. চেস।

তিনি তার নিবন্ধে উদ্যান ফসল উৎপাদনে বিভিন্ন কলাকৌশল সম্পর্কে তুলে ধরেন এবং বিশেষ করে স্ট্রবেরি চাষ এবং উৎপাদন বৃদ্ধি কৌশল উল্লেখ করেন। পরে তিনি বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন বাংলাদেশে স্ট্রবেরি চাষে চ্যালেঞ্জ থাকলেও প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে। প্রযুক্তি হস্তান্তরের মাধ্যমে এদেশে উদ্যান ফসল বিশেষ করে ফল চাষের ব্যাপক সাফল্য অর্জন সম্ভব। তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে যৌথ শিক্ষা গবেষণার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণারত খুবির এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক প্রশান্ত কুমার দাস ড. কার্লিনি এ. চেস এর গবেষণা কর্মসহ উল্লেখযোগ্য দিক এবং ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মোঃ ইয়ামিন কবির খুবির এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিন সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করেন। এসময় ডিসিপ্লিনের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বেগম জিয়ার ১১ মামলার হাজিরা এপ্রিল ১৬

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও নাশকতার ১০টিসহ মোট ১১ মামলায় হাজিরা আগামী ১৬ই এপ্রিল ধার্য করেছেন আদালত।

সোমবার, মার্চ ৪, ২০১৯, রাজধানীর বকশীবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েশ আসামি পক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে নতুন এ দিন ধার্য করেন।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা এসব মামলার অধিকাংশই উচ্চ আদালতের আদেশে স্থগিত রয়েছে উল্লেখ করে আদালতের কাছে সময়ের আবেদন করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়াউদ্দিন জিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

খালেদার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা হলো – দারুস সালাম থানায় রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও নাশকতার আট মামলা এবং যাত্রাবাড়ী থানার দু’টি মামলা। আজ এই ১১ মামলার মধ্যে ১০ মামলার অভিযোগ গঠন শুনানি এবং যাত্রাবাড়ী থানার অপর একটি মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণের দিন ধার্য ছিল।

জামিনে মুক্ত বিএনপির কেন্দ্রীয় সমবায়বিষয়ক সম্পাদক জিকে গউছ

হবিগঞ্জে ১৩ দিন কারাভোগের পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন সাবেক পৌর মেয়র বিএনপির কেন্দ্রীয় সমবায়বিষয়ক সম্পাদক জিকে গউছসহ ১৪ নেতাকর্মী।রোববার উচ্চ আদালতের নির্দেশে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন তারা।

এর আগে জিকে গউছসহ ১৪ নেতাকর্মী হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে রোববার বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের আদালত শুনানি শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

জামিনপ্রাপ্ত অন্যরা হচ্ছেন- জিকে গউছের ছোটভাই জিকে গাফফার, বিএনপি নেতা ইউপি মেম্বার ছামিউন বাছির, যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি কুহিনুর আলম, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহসভাপতি জহিরুল হক শরীফ, ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ রাজীব আহমেদ রিংগন, ছাত্রদল নেতা গোলাম মাহবুব, যুবদল নেতা এমদাদুল হক বাবুল, এনামুল হক এনাম, আফিল উদ্দিন মেম্বার, আবদুস সাহেদ, শাহরিয়ার সৌরভ, সুমন মিয়া ও মিজানুর রহমান বাবুল।

বিশেষজ্ঞ গবেষকের ইউআরপি ডিসিপ্লিন পরিদর্শন খুবিতে নেদারল্যান্ডসের সহযোগিতায় চালু হচ্ছে স্যানিটেশনে মাস্টার্স

বৈশ্বিক চাহিদার নিরিখে স্যানিটেশন বিষয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স কোর্স চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি এ বিষয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান নেদারল্যান্ডস সফর করেন এবং খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে উক্ত কোর্স চালুর ব্যাপারে সমঝোতার বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

তারই ফলশ্রুতিতে এ বিষয়ে উচ্চতর নীতিনির্ধারক মহলের অন্যতম বিশেষজ্ঞ শিক্ষক-গবেষক হংকং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. গ্যাং-হাও চ্যান। তিনি দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষের সাথে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. উত্তম কুমার মজুমদার, প্রফেসর ড. মোঃ মিজানুর রহমান ভূইয়া এবং সংশ্লিষ্ট কোর্স প্রবর্তনের সমন্বয়ক প্রফেসর ড. মোঃ আহসানুল কবীর উপস্থিত ছিলেন। পরে প্রফেসর ড. গ্যাং-হাও চ্যান নগর ও গ্রামীন পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের একাডেমিক ও রিসার্চ সুবিদাধি পরিদর্শন করেন এবং সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষকদের সাথে মিলিত হন।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা হলে কর্মসূচি দেবে বিএনপি — আব্দুল্লাহ আল নোমান

সরকার এর আগেও গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে এখন আবারও বাড়ানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা হলে প্রতিবাদে কর্মসূচি দিবে বিএনপি বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলটির ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান।

রবিবার, মার্চ ৩, দুপুরে রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির এই ভাইস-চেয়ারম্যান বলেন, ‘এই সরকার তো শোষণের সরকার তারা এর আগেও গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে এখন আবার বাড়ানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গ্যাসের দাম বাড়ালে শিল্প থেকে শুরু করে সর্বক্ষেত্রে প্রভাব পরবে। এতে জনগণের ক্ষতি হবে। জনগণ সংকটে পরবে। আমি সরকারকে বলবো তারা যদি দেশের কথা ভাবে জনগণের কথা ভাবে তাহলে তাদের গ্যাসের দাম বাড়ানো উচিত হবে না। এরপরও গ্যাসের দাম বাড়ালে বিএনপি এর প্রতিবাদে কর্মসূচি দেবে।’

গণফোরামের দুই প্রার্থীর শপথের বিষয়ে নোমান বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্টের দুই নেতা কি বলেছেন, সেটা নয় ঐক্যফ্রন্ট সম্মিলিতভাবে কি বলছে সেটাই দেখার বিষয়। এখানে দুজনের তেমন গুরুত্বপূর্ণ না যতোটুকু গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত।’

গণফোরামের মূল দায়িত্বে থাকা ড. কামাল হোসেন এবং ঐক্যফ্রন্টের কার্যক্রম প্রশ্নবিদ্ধ হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা নির্ভর করবে গণফোরামের সভাপতির বক্তব্যের ওপর।’

খুবিতে দু’দিনব্যাপী আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় সঙ্গীত উৎসব শুরু

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক সংগঠন কৃষ্টি এর উদ্যোগে আজ ১ মার্চ বিকেল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তমঞ্চে দু’দিনব্যাপী আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় সঙ্গীত উৎসব শুরু হয়েছে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ প্রধান অতিথি হিসেবে উক্ত সঙ্গীত উৎসবে প্রাথমিক পর্বে বক্তব্য রাখেন। তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত দলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন সাংস্কৃতিক জাগরণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে সহশিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ ধরণের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড শিক্ষার্থীদের মনন গঠনে ভূমিকা রাখে।

তিনি আমাদের দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে লালন, ধারণ ও বিকাশে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থী সঙ্গীত শিল্পীদের প্রতি আহবান জানান। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সংগঠন কৃষ্টিকে এই আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানান এবং দু’দিনব্যাপী এই আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত উৎসবের সাফল্য কামনা করেন। এ সময় ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন উপস্থিত ছিলেন। প্রথম দিনে ৬টি বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণকারী দল সঙ্গীত পরিবেশন করে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হচ্ছে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

এছাড়া শহরতলী ব্যান্ড দলও সঙ্গীত পরিবেশন করে। উল্লেখ্য এ উৎসবে ১২টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করছে। আগামীকাল অবশিষ্ট ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয় দল সঙ্গীত পরিবেশন করবে। বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ হচ্ছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস, নর্দার্ন ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি এবং নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি।